এই পাতাটি প্রিন্ট করুন এই পাতাটি প্রিন্ট করুন

শেকৃবিতে জাঁকজমকপূর্নভাবে “বিশ্ব এক স্বাস্থ্য দিবস-২০১৭” উদযাপিত

World Health Day শেকৃবিতে জাঁকজমকপূর্নভাবে বিশ্ব এক স্বাস্থ্য দিবস ২০১৭ উদযাপিত

শেকৃবি প্রতিনিধি:

রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শেকৃবি) জাঁকজমকপূর্নভাবে উৎযাপন করা হলো বিশ্ব এক স্বাস্থ্য দিবস-২০১৭। সারা বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বিশ্বব্যাপী এক স্বাস্থ্য দিবস পালন ও উৎযাপনের ধারাবাহিকতায়, রবিবার ৫ নভেম্বর বিকাল ৩ টায় ইকো হেলথ এলায়েন্স এবং ইউএসএইড প্রিপেয়ারডনেস এন্ড রেস্পন্স- ওয়ান হেলথ ইন একশন এর সহযোগিতায় শেকৃবি’র মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগ এবং ওয়ান হেলথ বাংলাদেশ যৌথভাবে শেকৃবি’তে এক বর্নাঢ্য র‍্যালি ও সেমিনার এর আয়োজন করে। র‍্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন হতে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থান প্রদক্ষিন করে।
র‍্যালি শেষে শুরু হয় ওয়ান হেলথ ইন বাংলাদেশ শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা সভা। শেকৃবি’র মেডিসিন এন্ড পাবলিক হেলথ বিভাগের চেয়ারম্যান ও বিশ্ব এক স্বাস্থ্য দিবস উৎযাপনের সমন্বয়ক ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় এবং এনিম্যাল সায়েন্স  এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এর সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেকৃবি’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেকৃবির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ সেকেন্দার আলী, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ারুল হক বেগ ও শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ এর অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এ বি এম মাকসুদুল আলম। সেমিনারে বিশ্ব এক স্বাস্থ্য দিবস এর উপর মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ফুড এন্ড এগ্রিকালচারাল অর্গনাইজেশন (এফএও) এর ওয়ান হেলথ সমন্বয়কারী প্রফেসর ড. নীতিশ চন্দ্র দেবনাথ। এছাড়া ৩০ টি গুরুত্বপূর্ণ জুনোটিক রোগের উপর বিশ্ববিদ্যালয়ের এনিম্যাল সায়েন্স  এন্ড ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের শিক্ষার্থীদের তৈরিকৃত পোস্টার প্রদর্শন করা হয়। মূল প্রবন্ধে বক্তারা জানান, মানুষের উদীয়মান সংক্রামক রোগসমূহের মধ্যে ৭৫ শতাংশ রোগ প্রাণী বা প্রাণিজাত দ্রব্য থেকে আসছে। সচেতনতার অভাবে এসব রোগ পৃথিবীব্যাপী দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে যা রোধকল্পে প্রয়োজন সমন্বিত প্রয়াস। ফলশ্রুতিতে, এক স্বাস্থ্য ধারণার বিকাশ অতীব জরুরি হয়ে পড়েছে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেকৃবি’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ বলেন, মানুষ দিন দিন অধিক সচেতন হচ্ছে। আগে হয়ত মানুষ শুধু নিজের স্বাস্থ্যের দিকে খেয়াল রাখতো কিন্তু  বর্তমানে নিজের স্বাস্থ্যের পাশাপাশি প্রাণি ও পরিবেশের স্বাস্থ্যের প্রতিও  মানূষ সমান গুরুত্ব দিচ্ছে যা সমগ্র মানবজাতির স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য অত্যাবশ্যকীয়।
সেমিনারে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত বাংলাদেশের একমাত্র জুনোটিক রোগ গবেষণা ও তথ্য কেন্দ্রের ইন-চার্জ এবং বিশ্ব এক স্বাস্থ্য দিবস উৎযাপনের সমন্বয়ক ড. কে, বি, এম, সাইফুল ইসলাম বলেন, আমাদের দেশের মানুষের মাঝে রোগ-বালাই ও তাদের বিস্তার সর্ম্পকিত ধারণা কম। মানুষের ধারণা নিজের রোগ নিজের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে। পরিবেশ বা প্রাণির রোগ  ও তাদের বিস্তার নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা কম দেখা যায়। ইবোলা, বার্ড ফ্লু এর মত ভয়ানক জুনোটিক রোগের প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রন ও সচেতনতা বৃদ্ধিকল্পে স্থায়ীভাবে এক স্বাস্থ্য কার্যক্রম চালু থাকা দরকার। আর এর জন্য প্রয়োজন সরকারি, বেসরকারি ও স্বেচ্ছাসেবক প্রতিষ্ঠানের সমন্বিত উদ্যোগ। সেমিনারে বিভিন্ন শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, বৈজ্ঞানিকসহ প্রায় চার শতাধিক ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৬-২০১৭. কৃষিসংবাদ.কম
(গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত)