এই পাতাটি প্রিন্ট করুন এই পাতাটি প্রিন্ট করুন

রাজধানীতে শেষ হলো ডেইরি, মৎস্য ও পোষা প্রাণী মেলা

ডেইরি, মৎস্য ও পোষা প্রাণী মেলা
কৃষি সংবাদ ডেস্কঃ  প্রথমে রোগ নির্ণয়, এরপর চিকিৎসা, পরামর্শ ও ওষুধ সেবন। এভাবেই ডেইরি, প্রাণী ও মৎস্যর চিকিৎসায় সম্পূর্ণ সমাধান দেয় বিভিন্ন কোম্পানি। আর এসব সেবা নিতে শেষ দিন ভিড় লক্ষ্য করা গেছে রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হওয়া ডেইরি, মৎস্য ও পোষা প্রাণী মেলায়। গতকাল ২০/২/২০১৬ তারিখ এ মেলার পর্দা নামে।

গতকাল মেলার শেষ দিন হওয়ায় সকাল থেকেই কৃষক আর খামারিদের পদচারণায় প্রাণবন্ত হয়ে উঠে মেলা প্রাঙ্গণ। এ অবস্থায় সেবা দিতে অনেকটা হিমশিম খেতে হয় প্যাভিলিয়নে কর্মরতদের। কথা হয় এসিআই অ্যানিমেল হেলথ ডিভিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে। আধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন যন্ত্রাংশ দিয়ে রোগ নির্ণয় ও এর প্রতিকারের ওষুধ, সবকিছুই সরবরাহ করছে এ ডিভিশন।

প্যাভিলিয়নের কর্মীরা জানান, চিকিৎসক, প্রযুক্তি ও গুণগত সম্পন্ন ওষুধ সবকিছুই এসিআই’র রয়েছে। যার ফলে একেবারে  শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ সেবা তারা দিতে পারছেন খামারি ও চাষিদের। এসিআই অ্যানিমেল হেলথ শাখার মার্কেটিং ম্যানেজার ডা. মো. আমজাদ হোসাইন গণমাধ্যমকে বলেন, ডেইরি, প্রাণী ও মাছের গুণগত মান ঠিক রাখতে বর্তমানে অ্যান্টিবায়োটিককে দূরে রাখা হচ্ছে। আমরাও সেই নীতি অবলম্বন করে পণ্য তৈরি করে বাজারজাত করছি।

তিনি জানান, প্রাণী, ডেইরি ও মাছের স্বাস্থ্য ঠিক রাখার পাশাপাশি যেন গুণগত মানসম্মত উৎপাদন হয়, এ বিষয়টিই প্রাধান্য দিয়ে এসিআই অ্যানিমেল হেলথ শাখা ওষুধ তৈরি ও বাজারজাত করছে। রোগ নির্ণয় আধুনিক যন্ত্রাংশ সরবরাহ করছে এ প্রতিষ্ঠান। এসিআই’র প্যাভিলিয়নে প্রতিষ্ঠানটির প্রোডাক্ট এক্সিকিউটিভ ডা. মনোয়ার হোসেন, প্রোডাক্ট ম্যানেজার ডা. নিজাম উদ্দিন রনিসহ অন্যান্য কর্মীরা জানান, নতুন কয়েকটি পণ্যের মধ্যে রয়েছে গর্ভাবস্থা নির্ণয়ে আল্ট্রাসনোগ্রাফি মেশিন, ফ্রাসিসজো (লিকুইড)।

তাদের রয়েছে, পুকুরের মাটি, পানি পরীক্ষার জন্য পিএইচ মিটার, ডিও মিটার, পানির অক্সিজেন দ্রবীভূত করতে ওয়ারেটর। অ্যান্টিবায়োটিক ফ্রি মাছ উৎপাদনে অ্যান্টিবায়োটিকের বিকল্প হিসেবে ফ্রাওসপিএল, ভিটা বায়োটিক এফএস’সহ বিভিন্ন ওষুধ সরবরাহ করছে এসিআই। এছাডড়া প্রোবায়োটিকের মধ্য রয়েছে এরিকত পন্টস।

অ্যাডভান্সড এনিমেল সায়েন্স কোম্পানি জানায় দেশের প্রাণী সম্পদকে এগিয়ে নেয়ার পাশাপাশি এ খাতকে সমৃদ্ধ করতে কাজ করে যাচ্ছে তারা। প্রতিষ্ঠানটির এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর আমিনুল হক বলেন, এ লক্ষ্যে খামারিদের পালিত প্রাণীদের ল্যাব ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। এছাড়া উন্নত ও প্রযুক্তি সম্পন্ন দেশ থেকে এ খাতের পণ্য সরবরাহ করা হচ্ছে।

তিনি জানান, সর্বপ্রথম তারা প্রাধান্য দেন পণ্যের মানের ওপর। উন্নত ও প্রযুক্তি সম্পন্ন দেশ থেকে পণ্য বাজারজাত করায় খামারিদের কাছ থেকে অনেক ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। এর মাধ্যমে পোল্ট্রি সেক্টরের উন্নয়নেও অংশগ্রহণ করছেন তারা।  অ্যাডভান্সড এনিমেল সায়েন্স কোং. লিমিটেড পোল্ট্রি ভ্যাকসিন, ডেইরি ভ্যাকসিন বাজারজাত করছে। এ প্রতিষ্ঠানের ডায়াগনস্টিক ল্যাব রয়েছে। যেখান থেকে বিভিন্ন প্রাণীর রোগ নির্ণয় করা হয়। এছাড়া বায়োগ্যাস, ডেইরি সার্জিক্যালের উপকরণ, ডায়াগনস্টিক কিট, পুষ্টি সমৃদ্ধ পণ্য, দুধ দহনে মেশিনসহ প্রয়োজনীয় নানা পণ্য বাজারজাত করছে প্রতিষ্ঠানটি। সারাদেশে ১৯টি ডিপো থেকে এসব পণ্য খামারিদের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়। তাদের প্রাণী স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র রয়েছে। এখান থেকেও নানা সেবা পেয়ে থাকেন খামারিরা।

মাছ চাষ বিষয়ে পরামর্শ : মাছ চাষ করতে গিয়ে চাষিরা নানান সমস্যায় পড়েন। কিন্তু সঠিক দিকনির্দেশনা ও সহযোগিতার অভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হন তারা। এবার এসব সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এসেছে দেশের বৃহৎ মৎস্য ও প্রাণী স্বাস্থ্যের ওষুধ উৎপাদন ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান এসকেএফ বাংলাদেশ লিমিটেড।

মেলায় দেখা যায়, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিনামূল্যে মাছ চাষিদের সব ধরনের সমস্যার সমাধান দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির এগ্রোভেট ডিভিশন। ০৯৬১৩১২১২১২ নম্বরে মিসডকল দিলেই প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা ফোন করে সমস্যার সমাধান জানাবেন গ্রাহককে। এছাড়া সরাসরি কল করলেও তা কেটে দিয়ে ফিরতি কলে সমাধান জানানো হয়। এসকেএফ বাংলাদেশ লিমিটেড’র এগ্রোভেট ডিভিশনের সিনিয়র প্রোডাক্ট ম্যানেজার সুবীর ওবায়েদ গণমাধ্যমকে বলেন, সঠিক নির্দেশনার অভাবে তৃণমূলসহ সব পর্যায়ের চাষিরা মাছ চাষে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হন। এতে দেশের মাছ চাষও কমে যায়, চাষিরাও ক্ষতিগ্রস্ত হন। এসব বিবেচনায় এনে বিনামূল্যে এই সেবা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি জানান, এসকেএফ পরিবেশবান্ধব প্রোবায়োটিক ওষুধ বাজারজাত করছে। ২০০১ সাল থেকে চলা এগ্রোভেট ডিভিশনের বর্তমানে ২৩২টি পণ্য রয়েছে। এছাড়া মৎস্য চাষি ও খামারিদের সমৃদ্ধ করতে চিকিৎসা, পরামর্শ দিচ্ছেন তাদের নিজস্ব চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞরা।স্টলের কর্মীরা জানান, শুধু মাছ চাষ নয়, পোল্ট্রি ও প্রাণিসম্পদ খাতেও দেশের খামারিদের কাছে নতুন নতুন পণ্য সরবরাহ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

আরও পড়ুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৭-২০১৮. কৃষিসংবাদ.কম
(গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত)